ময়মনসিংহ - ২৯শে অক্টোবর, ২০২০ || ১৩ই কার্তিক, ১৪২৭

শিরোনাম

শেরপুরের ঝিনাইগাতীতে প্রতিপক্ষের হামলায় অন্তঃসত্ত্বা গৃহবধূর গর্ভের সন্তানের মৃত্যু

প্রতিপক্ষের হামলায় অন্তঃসত্ত্বা গৃহবধূর গর্ভের সন্তানের মৃত্যু

মুহাম্মদ আবু হেলাল,শেরপুর প্রতিনিধি:

শেরপুরের ঝিনাইগাতীতে প্রতিপক্ষের হামলায় গর্ভের সন্তানের মৃত্যু হল সুবেদা বেগম (৩২)নামে এক অন্তঃসত্ত্বা গৃহবধূর। ঘটনাটি ঘটেছে,গত১৬সেপ্টেম্বর বুধবার সকালে উপজেলার কাংশা ইউনিয়নের নাচনমহুরী গ্রামে। সুবেদা বেগম ওই গ্রামের দরিদ্র কৃষক আব্দুল মান্নানের স্ত্রী। ওই গ্রামের ইউপি সদস্য মুসলিম উদ্দিনসহ গ্রামবাসীরা জানান,প্রতিবেশী ইসমাইল হোসেন ওরফে ফেক্কার সাথে বসতবাড়ীর সীমানা নিয়ে বেশ কিছুদিন যাবৎ বিরোধ চলে আসছিল। ওইদিন সকাল সাড়ে ৮ঘটিকার দিকে ইসমাইল হোসেন ও তার লোকজন কৃষক আব্দুল মান্নানের বাড়ীর সীমানার পাশে রোপিত ১৫ টি সুপারী চারা গাছ উপড়ে ফেলে। এ সময় আব্দুল মান্নান বাঁধা দিতে গেলে ইসমাইল হোসেন ফেক্কা ও তার লোকজন মান্নানকে বেধড়ক ভাবে মারপিট করে। এতে মান্নান গুরুত্বর ভাবে আহত হন। এসময় মান্নানের ডাক চিৎকারে তার অন্তসত্বাস্ত্রী সুবেদা বেগম স্বামী মান্নানকে উদ্ধার করতে গেলে তাকেও কিল ঘুষি লাথি মেরে গুরুত্বরভাবে আহত করে। পরে স্থানীয়রা আহত আব্দুল মান্নান ও তার স্ত্রী সুবেদা বেগমকে উদ্ধার করে প্রথমে ঝিনাইগাতী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ও পরে উন্নত চিকিৎসার জন্য শেরপুর জেলা সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। চিকিৎসাধীন অবস্থায় সুবেদা বেগমের গর্ভের সন্তানের মৃত্যু ঘটে। এব্যাপারে আব্দুল মান্নান বাদী হয়ে ঝিনাইগাতী থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেছেন। ঝিনাইগাতী থানার পুলিশ পরিদর্শক এস আই হারুনুর রশিদ বলেন, ওই ঘটনায় এক পক্ষের অভিযোগের প্রেক্ষিতে মামলা দায়ের হয়েছে। অপর পক্ষেরও অভিযোগ পাওয়া গেছে। তদন্ত করে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

এই বিভাগের আরও খবর