ময়মনসিংহ - ৪ঠা ডিসেম্বর, ২০২০ || ১৯শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৭

শিরোনাম

শেরপুরে জিংক ধান রোপন করে ক্ষতিগ্রস্থের সন্মুখিন প্রান্তিক কৃষক

মুহাম্মদ আবু হেলাল, শেরপুর প্রতিনিধি: শেরপুর সদর উপজেলার ৬ নং পাকুড়িয়া ইউনিয়নের তিলকান্দী,ভাটিয়া পাড়া গ্রামে জিংক ধান রোপন করে ক্ষতিগ্রস্থ অনেক কৃষক। এলাকাবাসীর সূত্রে এবং অনুসন্ধান করতে গিয়ে জানা যায়, তিলকান্দি ও ভাটিয়া পাড়া গ্রামে রৌহা বিলে প্রায় ৫০(পঞ্চাশ) একরের মতো জমিতে এই জিংক জাত ধানের ফলন রোপন করে কৃষকেরা হতাশ। এ বিষয়ে তিলকান্দি গ্রামের কৃষক জাকারিয়া বলেন, আমাদের রৌহা বিলে যারা জিংক জাত ধান বেশি ফলনের আশায় রোপন করে। একর প্রতি খরচ হয় প্রায় ৫,০০০০/-(পঞ্চশ হাজার) টাকা। কিন্তু কৃষকের ক্ষেতের ফলন অনুযায়ী খরচের টাকাও উঠবেনা এমনটাই ধারনা করছেন সেখানকার কৃষকরা। একদিকে করোনা ভাইরাসের মহামারিতে গ্রামের কৃষকদের বারটা বেজে গেছে। অপরদিকে বেশি ফলনের আশায় জিংক ধানের আবাদ করে আশানুপাত ফলন না আসায় পথে বসার জোগাড় হয়েছে জিংক দান চাষীদের।
এই ব্যাপারে পাকুড়িয়া ইউনিয়নের উপ-সহকারী কৃষি কর্মকর্তা মনোয়ার হোসেন মোল্লার সাথে মোবাইলে যোগাযোগ করা হলে তিনি জানান, এটা এন.জি.ও সংস্থার প্রতিনিধিরা জানে।আমরা অবগত না। আপনারা তাদের সাথে যোগাোযোগ করতে পারেন। স্থানীয় কৃষকদের জিজ্ঞাসা, আমরা গরীব কৃষক, অধিক ফলনের আশায় আমরা জিংক ধান আবাদ করেছি, তারা যে আমাদের সাথে এতবড় প্রতারনা করলো, বিষয়টি কি প্রশাসনের নজর দেয়া প্রয়োজন নয় কি?

এই বিভাগের আরও খবর